বিদেশে মেডিকেলে পড়তে গেলেন আড়াই শয়ের বেশি শিক্ষার্থী

বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর প্রচুর শিক্ষার্থী বিদেশে বিভিন্ন বিষয়ে পড়াশোনা করতে যান। বিশেষ করে মেডিকেলে ভর্তিচ্ছু অনেকেই বিদেশে পাড়ি জমান ডাক্তার হওয়ার স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে। এবারো বেশ কিছু শিক্ষার্থী সেই ধারাবাহিকতায় মেডিকেলে পড়ার উদ্দেশ্যে বিদেশ যাওয়ার জন্য সার্টিফিকেট সংগ্রহ করেছেন।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি) সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর এখন পর্যন্ত ২৫৬ জন শিক্ষার্থী বিদেশে যাওয়ার জন্য সার্টিফিকেট সংগ্রহ করেছেন।

বর্তমানে বিশ্বের যে কোন দেশে মেডিকেল বিষয়ে পড়াশোনা করতে যাওয়ার আগে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি) থেকে প্রি-অ্যালিজিবিলিটি (যোগ্যতা) সার্টিফিকেট সংগ্রহ করা বাধ্যতামূলক করে দেয়া হয়েছে।আগে শিক্ষার্থীরা একসময় যে কোন প্রকারের পাসের শিক্ষাগত যোগ্যতাটুকু থাকলেই বিদেশের মেডিকেল কলেজে ভর্তি হতে পারতো। নির্দিষ্ট মেয়াদ শেষে তারা দেশে ফিরে প্র্যাকটিসের জন্য আবেদন করে নিবন্ধন নিতেন। এ পদ্ধতিতে মান নিয়ন্ত্রণ কষ্টসাধ্য ছিল। তাই বিএমডিসি থেকে প্রি-অ্যালিজিবিলিটি নেয়ার এই পদ্ধতি চালু হয় বলে জানান বিএমডিসির রেজিষ্ট্রার ডা. জাহেদুল হক বসুনিয়া। কোন শিক্ষার্থী প্রাক সার্টিফিকেট ছাড়া বিদেশের মেডিকেলে পড়াশোনা করে পাস করলেও বিএমডিসি তাকে নিবন্ধন প্রদান করবে না বলে তিনি জানান।২০১১ সালে বিএমডিসি নতুন নিয়ম চালু করেছে, সেই নিয়ম অনুযায়ী দেশীয় মেডিকেলে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীদের যে ধরনের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা (জিপিএ ৮) কিংবা সমমানের যোগ্যতা থাকতে হয়, বিদেশের মেডিকেলে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদেরকেও ন্যূনতম জিপিএ সে রকম থাকতে হবে।

campuslive24.com ও বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক অবলম্বনে

Permanent link to this article: http://bangla.salearningschool.com/recent-posts/%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%a6%e0%a7%87%e0%a6%b6%e0%a7%87-%e0%a6%ae%e0%a7%87%e0%a6%a1%e0%a6%bf%e0%a6%95%e0%a7%87%e0%a6%b2%e0%a7%87-%e0%a6%aa%e0%a7%9c%e0%a6%a4%e0%a7%87-%e0%a6%97%e0%a7%87%e0%a6%b2/

Leave a Reply

%d bloggers like this: