ডেটা কমিউনিকেশন ও কম্পিউটার নেটওয়ার্ক : কম্পিউটার নেটওয়ার্ক টাইপ (DCN – Computer Network Types)

রিদওয়ান বিন শামীম

 

সাধারণত নেটওয়ার্কের বিস্তৃতি বলতে এর ভৌগলিক বিস্তৃতি বোঝায়, এটি আমাদের ব্যবহৃত সেলফোন থেকে এর ব্লুটুথ হেডফোন পর্যন্ত ক্ষুদ্র দূরত্বের হতে পারে আবার ইন্টারনেটের মত বিশ্বব্যপী বিস্তৃতও হতে পারে।

 

পারসোনাল এরিয়া নেটওয়ার্ক

ক্ষুদ্রতম নেটওয়ার্ক, ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত ব্যবহারে সীমাবদ্ধ। ব্লুটুথ বা ইনফ্রারেড সমৃদ্ধ যন্ত্রপাতি এই ধরণের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে। ১০ মিটার সীমার এই নেটওয়ার্ক তারবিহীন মাউস, কীবোর্ড, অয়ারলেস প্রিন্টার ও টিভি রিমোটে দেখা যায়। পিকোনেট এরকম একটি পারসোনাল এরিয়া নেটওয়ার্ক যেটিতে ব্লুটুথ ব্যবহার করে আটটি ডিভাইস সমন্বয় করে ব্যবহার করা হয়।

 

লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক বা লেন

কোনও বিল্ডিং বা একক প্রশাসনের আওতাধীন কম্পিউটার নেটওয়ার্ককে লেন বলে।লেন সাধারণত কোনও সংস্থার অফিস, স্কুল, কলেজ ও ইউনিভার্সিটি ইত্যাদি কভার করে ।দুই বা ততোধিক কম্পিউটার নিয়ে লেন হতে পারে, আবার ১৬ মিলিয়ন একক নিয়েও লেন হওয়ার নজির রয়েছে। লেনের ক্ষেত্রে প্রিন্টার, ফাইল সার্ভার, স্ক্যানার ও ইন্টারনেট সহজে শেয়ার করা সম্ভব হয়। এটি হেভি রাউটিং এড়িয়ে চলে ও ব্যক্তিগত আইপি এড্রেস দ্বারা চালিত। এটি ইথারনেট বা টোকেন রিং টেকনোলজি ব্যবহার করে থাকে, ইথারনেট বেশি ব্যবহৃত হয়, যা স্টার টপোলজি ব্যবহার করে, টোকেন রিং টেকনোলজি অপেক্ষাকৃত কম দেখা যায়। লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক বা লেন তারযুক্ত বা তারবিহীন উভয় রকমই হতে পারে।

 

মেট্রোপলিটন এরিয়া নেটওয়ার্ক বা মেন

ক্যাবল টিভির মত শহরাঞ্চলে দেখা যায়। ইথারনেট,টোকেন রিং, এটিএম বা এফডিডিআই যেকোনো ফর্মে এটি হতে পারে। মেট্রোপলিটন এরিয়া নেটওয়ার্ক আইএসপির মাধ্যমে সম্পাদিত, এটি পারসোনাল এরিয়া নেটওয়ার্ককে পরিবর্ধনের সুযোগ করে দেয়। মেন নেটওয়ার্কের মূল শক্তি হল উচ্চক্ষমতা ও গতিসম্পন্ন ফাইবার অপটিক্স। মেট্রোপলিটন এরিয়া নেটওয়ার্ক লেন থেকে ওয়াইড এরিয়া নেটওয়ার্কে আপলিঙ্ক প্রবর্তন করে।

 

ওয়াইড এরিয়া নেটওয়ার্ক

অনেকখানি জায়গা এমনকি পুরো দেশের নেটওয়ার্কও ধারণ করতে পারে।এটি ব্যয়বহুল ও শক্তিশালী। টেলিযোগাযোগ এক ধরণের ওয়াইড এরিয়া নেটওয়ার্ক। এটি এটিএম, ফ্রেম রিলে, সনেট বা Synchronous Optical Network ইত্যাদি এডভান্সড প্রযুক্তি ব্যবহার করে ।

 

ইন্টারনেটওয়ার্ক

নেটওয়ার্কের নেটওয়ার্ককে ইন্টারনেটওয়ার্ক বা সহজ ভাষায় ইন্টারনেট বলে। এটি টিসিপি/ আইপি প্রটোকল স্যুইট ব্যবহার করে , আইপিকে এড্রেসিং প্রটোকল হিসেবে ব্যবহার করে। বর্তমান সময়ে IPv4 বেশি ব্যবহার করা হচ্ছে। ইন্টারনেট এর ব্যবহারকারীকে বিশ্বব্যপী বিস্তৃত প্রচুর তথ্যের সাথে সংযুক্ত করতে পারে।এর মূল অবদানগুলোর কয়েকটি হল,

  • ওয়েবসাইট,
  • ইমেইল,
  • ইনস্ট্যান্ট ম্যাসেজিং,
  • ব্লগিং,
  • সোশ্যাল মিডিয়া,
  • মার্কেটিং,
  • নেটওয়ার্কিং,
  • রিসোর্স শেয়ারিং
Series Navigation<< ডেটা কমিউনিকেশন ও কম্পিউটার নেটওয়ার্ক : সংক্ষিপ্ত বিবরণ (DCN – Overview)ডেটা কমিউনিকেশন ও কম্পিউটার নেটওয়ার্ক : নেটওয়ার্ক লেন টেকনোলজি (DCN – Network LAN Technologies) >>

Permanent link to this article: http://bangla.salearningschool.com/recent-posts/%e0%a6%95%e0%a6%ae%e0%a7%8d%e0%a6%aa%e0%a6%bf%e0%a6%89%e0%a6%9f%e0%a6%be%e0%a6%b0-%e0%a6%a8%e0%a7%87%e0%a6%9f%e0%a6%93%e0%a7%9f%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%95-%e0%a6%9f%e0%a6%be%e0%a6%87%e0%a6%aa/

Leave a Reply

%d bloggers like this: